প্রিয় চাকরিপ্রার্থীগণ Live MCQ এর ৪৭তম বিসিএস পরীক্ষার ২০০ দিনের / ১৪০ দিনের নতুন রুটিন ও স্পেশাল ডিসকাউন্ট অফার সংক্রান্ত আলোচনায় আপনাদের স্বাগতম। আপনারা জেনে খুশি হবেন যে ১ মিলিয়ন ব্যাবহারকারী নিয়ে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ তারিখে Live MCQ পথ চলার ৮ম বর্ষে পদাপর্ণ করে। এই পথ চলায় আপনাদের সাথে আমাদের সম্পর্ক ছিলো পারস্পারিক আস্থা ও ভালোবাসার।

আমাদের রয়েছে ৩৮-৪৬তম বিসিএসের সফল প্রস্তুতি প্রোগ্রাম পরিচালনা করার অভিজ্ঞতা যার মধ্যে রয়েছে ২টি স্পেশাল বিসিএস (স্বাস্থ্য)। Live MCQ এর প্রোগ্রাম ব্যবহার করে এখন পর্যন্ত অসংখ্য পরীক্ষার্থী বিসিএস ক্যাডার হয়েছেন যার প্রকৃত সংখ্যা আমাদের অজানা এবং এই সংক্রান্ত হিসাবও আমরা রাখি না! অনেকেই ভালোবাসা থেকে আমাদের ফেসবুক গ্রুপে পোস্ট করেন, মেসেজ করেন, ফোন এবং কমেন্টের মাধ্যমে তাদের অনুভূতি জানান, কিন্তু সেটার লিস্ট কখনো বানানো হয়নি। সম্প্রতি Live MCQ ব্যবহার করে যেসব চাকরি প্রার্থী সফল হয়েছেন তাদের অনুভূতি গুলো সফলদের কথা ও অনুপ্রেরণার গল্প নামে আমাদের ফেসবুক পেইজে এবং ওয়েবসাইটে শেয়ার করা শুরু করেছি যা অন্য চাকরি প্রত্যাশীদের লক্ষ্যে অবিচল থাকতে সহযোগিতা করবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

বিসিএস প্রস্তুতি নিয়ে দীর্ঘ সময়ের প্রোগ্রাম পরিচালনা করার অভিজ্ঞতা এবং লাখ লাখ ব্যাবহারকারীর তথ্য উপাত্ত বিশ্লেষণ করে আমরা বুঝতে পারি একজন নতুন চাকরি প্রত্যাশী যিনি সম্প্রতি বিসিএস প্রস্তুতি শুরু করেছেন এবং একজন অভিজ্ঞ চাকরি প্রত্যাশী যিনি দীর্ঘ সময় ধরে বিসিএস প্রস্তুতি নিচ্ছেন তাদের প্রস্তুতির প্যাটার্ন অনেকটাই ভিন্ন। এই অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়েই আমরা সম্পূর্ণ বিসিএস প্রস্তুতির জার্নিকে নতুনদের বিসিএস প্রস্তুতি এবং অভিজ্ঞদের বিসিএস প্রস্তুতি নামে ২টি ভাগে বিভক্ত করেছি। যার ফলে একজন চাকরিপ্রার্থী নতুন বা পুরাতন যে পর্যায়েই থাকুক না কেন আমাদের তৈরি করা কাস্টমাইজড প্রোগ্রাম থেকে প্রস্তুতি নিতে পারবেন সহজেই।

একজন নতুন বিসিএস প্রত্যাশী যিনি সম্প্রতি ৪৭তম বিসিএস এর প্রস্তুতি শুরু করেছেন তাদের জন্য রয়েছে ১৪০ দিন এবং ২০০ দিনে পুরো সিলেবাস সম্পন্ন করার প্রোগ্রাম। এবং একজন অভিজ্ঞ বিসিএস প্রত্যাশী যিনি দীর্ঘ সময় ধরে বিসিএসের প্রস্তুতি নিচ্ছেন তাদের জন্য রয়েছে ১০০ দিন এবং ৯০ দিনে পুরো সিলেবাস সম্পন্ন করার প্রোগ্রাম।

১ প্যাকেজেই ৪৭তম বিসিএস সহ সকল চাকরির প্রস্তুতি নিন

নতুনদের জন্য ১৪০ দিনে ৪৭তম বিসিএস প্রস্তুতির রুটিনে যা যা থাকছে!

🕰️ ১৪০ দিনে বিসিএসের পুরো সিলেবাস সম্পন্ন।

মোট পরীক্ষার সংখ্যা: ৪০টি।

বিষয়ভিত্তিক মিক্সড পরীক্ষা: ৩০টি

রিভিশন পরীক্ষা: ১০টি

লাইভ পরীক্ষা শুরু: ৫ জুন ২০২৪

আর্কাইভের প্রশ্ন: ৩.৮ লাখ [অথেনটিক রেফারেন্স থেকে ব্যাখ্যাসহ]

মোট ভিডিয়ো ক্লাস ও লেকচার PDF: ৬১৫টি।

নতুনদের ১৪০ দিনে ৪৭তম বিসিএস প্রস্তুতি রুটিনের PDF ডাউনলোড লিঙ্ক:

অথবা, Live MCQ অ্যাপ বা সাইটের হোমপেজ > PDF Section > রুটিন ও কারিকুলাম অপশন থেকে রুটিন ডাউনলোড করুন।

নতুনদের জন্য ২০০ দিনে ৪৭তম বিসিএস প্রস্তুতির রুটিনে যা যা থাকছে!

🕰️ ২০০ দিনে বিসিএসের পুরো সিলেবাস সম্পন্ন।

মোট পরীক্ষার সংখ্যা: ১৯০টি।

ডেইলি কুইজ: ১২০টি

নতুনদের প্রস্তুতি: ৬০টি ও

রিভিশন পরীক্ষা: ১০টি।

লাইভ পরীক্ষা শুরু: ১০ মে, ২০২৪

আর্কাইভের প্রশ্ন: ৩.৭ লাখ [অথেনটিক রেফারেন্স থেকে ব্যাখ্যাসহ]

মোট ভিডিয়ো ক্লাস ও লেকচার PDF: ৬১৫টি।

নতুনদের ২০০ দিনে ৪৭তম বিসিএস প্রস্তুতি রুটিনের PDF ডাউনলোড লিঙ্ক:

অথবা, Live MCQ অ্যাপ বা সাইটের হোমপেজ > PDF Section > রুটিন ও কারিকুলাম অপশন থেকে রুটিন ডাউনলোড করুন।

47 BCS Discount Offer

লক্ষণীয়:

১. নতুনদের বিসিএস প্রস্তুতির এই রুটিনে সারাবছর জুড়ে চক্রাকারে পরীক্ষা চলমান থাকে। রুটিনের মাঝখানে যেকোনো সময় পরীক্ষা শুরু করা হলেও ২০০ / ১৪০ দিনের মধ্যে পুরো সিলেবাস সম্পন্ন হবে।

২. এই রুটিনের পরীক্ষাগুলো দুটি বাটনে অনুষ্ঠিত হয় এবং প্রতিদিন পরীক্ষা থাকে। বাটন দুটি হলো ⎯ ডেইলি কুইজনতুনদের বিসিএস প্রস্তুতি

৩. প্রতি শুক্রবার বিসিএসের সম্পূর্ণ সিলেবাসের উপর ২০০ মার্কের ফ্রি সাপ্তাহিক ফুল মডেল টেস্ট থাকবে।

৪. Live MCQ সাবজেক্ট কেয়ার বাটনে বিসিএস পরীক্ষার সকল সাবজেক্টের উপর ভিডিয়ো ক্লাস রয়েছে।

Live MCQ আপনার চাকরির প্রস্ততির ওয়ান স্টপ সলিউশন যেখানে একটি অ্যাাপেই Exam Section, Study Section এবং Premium Section এ থাকা ফিচার গুলো থেকে বিসিএস প্রস্তুতির সকল প্রয়োজন মিটাতে পারবেন একজন চাকরি প্রত্যাশী। অভিজ্ঞ মেন্টরদের ক্লাস, বেস্ট স্ট্যাডি ম্যাটেরিয়াল/ PDF লেকচারশিট, হাজারো পরীক্ষার্থীর সাথে লাইভ পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে প্রস্তুতির মান যাচাই, বিষয়ভিত্তিক প্রস্তুতিসহ চাকরির পরীক্ষার জন্য দরকারি সকল উপকরণ পাবেন একটি অ্যাপেই। এছারও একঘেয়ে চাকরির প্রস্তুতি কে আরও আনন্দদায়ক করতে Live MCQ Multiplayer Quiz Game তো থাকছেই!

Download Live MCQ App

আমরা জানি একজন চাকরিপ্রার্থী তাঁর চাকরির প্রস্তুতির জার্নিতে শুধুমাত্র বিসিএস প্রস্তুতিতেই সীমাবদ্ধ থাকেন না। সময়ের প্রয়োজনে একজন চাকরিপ্রার্থীকে বিসিএস ছাড়াও আরও নানান চাকরির প্রস্তুতি নেয়ার প্রয়োজন পরতে পারে। এছাড়াও প্রার্থীদের মধ্যে বিভিন্ন সময় ট্র্যাক পরিবর্তন করার প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়। এই বিষয়গুলো বিবেচনা করে আমরা একটি প্যাকেজেই সকল ধরনের চাকরির প্রস্তুতির ব্যবস্থা রেখেছি।

আমাদের একটি প্রিমিয়াম প্যাকেজে থাকলেই একজন চাকরিপ্রার্থী বিসিএস, ব্যাংক, প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ, বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন, ৯ম – ২০তম গ্রেডের সকল চাকরির প্রস্তুতি নিতে পারবেন। ভিন্ন চাকরির প্রস্তুতির জন্য আলাদা কোন প্যাকেজ কিনতে হবে না। তবে স্পেশাল বিসিএস (স্বাস্থ্য) এর ক্ষেত্রে আমাদের আলাদা প্যাকেজ রয়েছে যার মেয়াদ স্পেশাল বিসিএস এর প্রিলিমিনারি পরীক্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত এবং সর্বোচ্চ ১ বছর। তবে কোন কারণে যদি আসন্ন বিসিএসটি স্পেশাল না হয় তাহলে প্রার্থীকে সম্পূর্ণ প্যাকেজের টাকা রিফান্ড করে দেওয়া হয়।

নতুন পরীক্ষার্থীরা যেভাবে ৪৭তম বিসিএস প্রস্তুতি নিবেন

  • প্রথমেই সিলেবাস ও প্রশ্নের ধরণ সম্পর্কে ধারণা নিতে হবে। তাই বিসিএসের আগের প্রশ্ন স্টাডি করতে হবে। Live MCQ অ্যাপেই বিসিএস জব সল্যুশন বাটনে ১০ – ৪৫তম বিসিএস পরীক্ষার প্রশ্ন ও রেফারেন্স অনুসারে ব্যাখ্যাসহ সমাধান রয়েছে। এগুলোর পাশাপাশি অন্যান্য জব সল্যুশনের প্রশ্নগুলোও পড়াশোনা করতে হবে।
  • নতুনদের বিসিএস প্রস্তুতির ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো – প্রস্তুতির ভিত্তি (Foundation) গড়ে তোলা। আমাদের বিগত ৯টি বিসিএস প্রস্তুতি প্রোগ্রাম নিয়ে কাজের অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি ⎯ প্রস্তুতির এই ভিত্তি/ফাউন্ডেশন তৈরি করার জন্য একজন নতুন চাকরীপ্রত্যাশীকে ন্যূনতম ৬ মাস – ১ বছর সময় ধরে ভালোভাবে পড়াশোনা করতে হবে।
  • এই ৬ মাস – ১ বছর সময়ের মধ্যে বিসিএসের পুরো সিলেবাস সম্পন্ন হয়ে যাবে। এই সময়ের মধ্যে আপনাকে প্রস্তুতির Strong Area ও Weak Point-গুলো চিহ্নিত করতে হবে। পরবর্তীতে শুধু এই দুর্বল বিষয়গুলো আলাদাভাবে সময় দিয়ে পড়াশোনা ও স্ট্রং বিষয়গুলো রিভিশন দিলেই প্রস্তুতি আরো নিখুঁত হবে।
  • শুধু বিসিএসের সিলেবাস সম্পন্ন করলেই ব্যাংক বাদে অন্যান্য পরীক্ষার প্রস্তুতির ৯৫% কাভার হয়ে যায়। অন্যান্য চাকরির প্রস্তুতির জন্য আলাদাভাবে পড়াশোনার খুব বেশি প্রয়োজন হয় না।
  • প্রস্তুতির শুরুর দিকে বিজ্ঞান বিভাগের যারা তারা কিছুটা সুবিধা পেয়ে থাকেন। কেননা, গণিত, বিজ্ঞান, ICT-এর জন্য আলাদাভাবে তাদের সময় দিতে হয় না। তবে, কিছুদিন সময় দিলে অন্যান্য বিভাগের শিক্ষার্থীরাও এই দুর্বলতা কাটিয়ে উঠতে পারবেন।

Live MCQ স্স্ট্যাডিপ্ল্যান নতুনদের ৪৭তম বিসিএস প্রস্তুতিতে যেভাবে সহায়তা করবে:

মূলত নতুনদের কথা বিবেচনা করে আমাদের নিয়মিত আয়োজন ২০০ দিনের এই স্টাডিপ্ল্যানটি প্রণীত। এই স্ট্যাডিপ্ল্যানের পরীক্ষাগুলো দুটি বাটনে অনুষ্ঠিত হয়-

i) ডেইলি কুইজ

ii) নতুনদের বিসিএস প্রস্তুতি।

  • PSC প্রদত্ত বিসিএস প্রিলিমিনারির যে সিলেবাস রয়েছে, সেটিকে টপিক অনুসারে ছোট ছোট ভাগ করে এই রুটিনটি প্রণয়ণ করা হয়েছে। এতে ডেইলি কুইজসহ মোট ১৯০টি পরীক্ষা রয়েছে।
  • নতুনদের বিসিএস প্রস্তুতি বাটনের মূল টপিককে ছোট দুই ভাগে ভাগ করে প্রথমে দুইটি ডেইলি কুইজ হয় এবং তৃতীয় দিন মূল টপিকের উপর পরীক্ষা হয়। এতে করে একইসাথে পড়ার পাশাপাশি একবার উক্ত টপিকটি রিভিশনও হয়ে যাচ্ছে।
  • পরবর্তীতে নতুনদের বিসিএস প্রস্তুতি বাটনে ৬টি মূল পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর উক্ত পরীক্ষাগুলোর টপিকের উপর আলাদাভাবে একটি রিভিশন পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে দ্বিতীয়বার রিভিশন শেষ হয়ে যাবে।
  • পর্যাক্রমে মোট ১৯০টি পরীক্ষার মাধ্যমে পুরো সিলেবাস সম্পন্ন হবে। এই ১৯০টি পরীক্ষার পাশাপাশি প্রতি শুক্রবার একটি ২০০ মার্কের ফ্রি সাপ্তাহিক ফুল মডেল টেস্ট অনুষ্ঠিত হবে।
  • বিষয়ভিত্তিক কোনো দুর্বলতা থাকলে তা দূর করার জন্য Live MCQ অ্যাপের সাবজেক্ট কেয়ার বাটনে বিসিএসের সকল সাবজেক্টের ক্লাসসহ পরীক্ষা রয়েছে।

Live MCQ-তে সবগুলো বাটনেই সারাবছর জুড়ে চক্রাকারে পরীক্ষা চলমান থাকে। যেকোনো সময় পরীক্ষা দেওয়া শুরু করলেও নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই [এই রুটিনের ক্ষেত্রে ২০০ দিনে] পুরো সিলেবাস সম্পন্ন হবে।

Live MCQ-এর যেকোনো ১টি প্রিমিয়াম প্যাকেজ নিলেই সকল চাকরির সব লাইভ পরীক্ষা, ক্লাস ও স্টাডি ম্যাটারিয়ালসহ সকল প্রিমিয়াম সার্ভিসের Access পাওয়া যাবে।

৪৭তম বিসিএসের জন্য কার্যকর প্রস্তুতির জন্য আরো যে পরীক্ষাগুলো অনুসরণ করা উচিত:

Live MCQ ফ্রি সাপ্তাহিক মডেল টেস্ট:

বিসিএসের সম্পূর্ণ সিলেবাসের উপর প্রতি শুক্রবারে ফ্রি এবং সবার জন্য উন্মুক্ত একটি ২০০ নাম্বারের ফুল মডেল টেস্ট অনুষ্ঠিত হয়।

বিষয়ভিত্তিক বিসিএস মিক্সড প্রস্তুতি (১৪০ দিনে পুরো সিলেবাস):

এতে বর্তমানে মোট ৩৫টি বিষয়ভিত্তিক মিক্স পরীক্ষার মাধ্যমে সিলেবাস সম্পন্ন করা হয়। যারা পূর্বে ১/২ বার সিলেবাস সম্পন্ন করে প্রস্তুতি নিয়েছেন, তাঁদের জন্য এই বাটনটি একটি আদর্শ প্রস্তুতির বাটন হতে পারে।

বিষয়ভিত্তিক বিসিএস প্রস্তুতি (১০০ দিনে পুরো সিলেবাস):

এই বাটনে প্রতি সপ্তাহে একটা করে সাবজেক্ট ফাইনাল পরীক্ষা হয়। ১০০ দিনে বিসিএসের সম্পূর্ণ সিলেবাস সম্পন্ন হবে।

বিসিএস ও অন্যান্য জব সল্যুশন:

এই বাটন দুইটির পরীক্ষাগুলো না পড়েই নিয়মিত অংশগ্রহণ করুন। সাধারণত ৫টি পরীক্ষা পর পর রিভিশন পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। শুধুমাত্র রিভিশন পরীক্ষার সময় প্রশ্ন ও ব্যাখ্যাগুলো ভাল করে পড়ে পরীক্ষা দিন। এই পদ্ধতিতে সময়ের সাথে সাথে পুরো জব সল্যুশন শেষ করতে পারবেন।

✅ যেহেতু ১ প্যাকেজেই সকল বাটনের পরীক্ষা দেওয়া যায়, তাই পরীক্ষা বেশি দিলে খরচ বাড়ছে না। তাই সকল বাটনের প্রশ্ন ও ব্যাখ্যাগুলো অবশ্যই নিয়মিত দেখে রাখলে প্রস্তুতি Stronger হবে।

✅ নিয়মিত বই পড়ার পাশাপাশি কোন বাটনের পড়া না হলেও প্রশ্ন এবং ব্যাখ্যা দেখে রাখলে কিছু ব্যাপার মাথায় থেকে যাবে। প্রিলিমিনারিতে ১/২টা প্রশ্নও অবিশ্বাস্য রকমের গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠে। তাই, পাশ ফেল নিয়ে এতো না ভেবে পরীক্ষা দিতে থাকবেন। আশা করি ভাল কিছু হবে।

Download Live MCQ App

৪৭তম বিসিএস উপলক্ষে চলছে Live MCQ এর স্পেশাল ডিসকাউন্ট অফার!

৪৭তম বিসিএস নতুন ব্যাচ ⎯ নতুন ডিসকাউন্ট অফার!!

  • বার্ষিক প্যাকেজ ⎯ ১১৯৯/- টাকা [20% Off]

[ডিসকাউন্ট ছাড়া প্যাকেজ ফি – ১৫০০ টাকা]

প্যাকেজের সুবিধা: ১ বছর বা ৩৬৫ দিনের জন্য Live MCQ অ্যাপের সকল ক্লাস, পরীক্ষা ও প্রিমিয়াম সার্ভিসসমূহ।

  • ষাণ্মাসিক প্যাকেজ ⎯ ৭৯৯/- টাকা [20% Off]

[ডিসকাউন্ট ছাড়া প্যাকেজ ফি – ১০০০ টাকা]

প্যাকেজের সুবিধা: ৬ মাস বা ১৮০ দিনের জন্য Live MCQ অ্যাপের সকল ক্লাস, পরীক্ষা ও প্রিমিয়াম সার্ভিসসমূহ।

⚡⚡ ডিসকাউন্ট অফার চলবে: ১০ জুলাই, ২০২৪ পর্যন্ত।⚡⚡

আপনারা জানেন যে, গত ৭ বছরে আমাদের প্রধান লক্ষ্য ছিলো

  • আপনাদেরকে ক্যারিয়ার বিষয়ে সচেতন করা।
  • আপনাদেরকে ক্যারিয়ার বিষয়ক স্ট্যাডির জন্য অধ্যবসায়ী, ধৈর্য্যশীল ও পরিশ্রমী মনোভাবের করে গড়ে তোলা।
  • দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল পর্যন্ত স্বল্পমূল্যে ক্যারিয়ার বিষয়ক সুযোগের সমতা তৈরি করা।
  • আপনাদের জন্য সবচেয়ে প্রতিযোগিতামূলক পরিবেশ তৈরি করা, যেখানে মূল পরীক্ষার আগেই আপনারা মূল পরীক্ষার একটি আবহ লাভ করবেন।

Live MCQ এই প্রচেষ্টায় কতটুকু সফল হয়েছে সেটা আপনারাই বিবেচনা করবেন। আমরা শুধু আপনাদের কাছ থেকে পাওয়া কিছু বিষয়ের কথা উল্লেখ করতে চাই। এই বিষয়সমূহই আমাদের বিগত ৭ বছরের সব থেকে বড় কিছু অর্জন।

Live MCQ-এর প্রতি আপনাদের নিঃস্বার্থ ভালোবাসা ও আস্থা। ❝Live MCQ শুধু একটি অ্যাপ নয়, এটা আবেগের নাম!❞ আপনাদের এই কথার পর আসলে আমাদের খুব বেশি চাওয়ারও আর কিছু থাকে না। এই ভালোবাসাই আমাদের সামনে এগিয়ে চলার অনুপ্রেরণা। আপনাদের ভালোবাসায় বর্তমানে আমরা ১ মিলিয়ন ইউজারের একটি বিশাল পরিবার!

শুভ কামনায় – Live MCQ